CHHICHHORE
Abdul Al Mamun

Abdul Al Mamun

কেমন হবে লিভিং রুমের ইন্টেরিয়র ডিজাইন

শৈল্পিকতার কোন শেষ নেই। সৌন্দর্য্য কেবল বাহ্যিকভাবেই প্রকাশ পায় না। বর্তমানে মানুষ সৌন্দর্য্য বলতে কেবল নিজেকে সাজানোই বোঝেনা, বরং তার বাসস্থানকেও সাজিয়ে তোলাকে বুঝায়। ঘরের ক্ষেত্রেও কিছু ভাগকরা স্থান থাক যেমন গেস্ট রুম, লিভিং রুম, কিচেন, রিডিং রুম, ষ্টোর রুম, বেড রুম, বাচ্চাদের রুম ইত্যাদি। এর মধ্য লিভিং রুম হচ্ছে সেই স্থান যেখানে বসে এক্তু গল্প করা যায়, অবসর সময় কাটানো যায়।

লিভিং বা ড্রয়িং রুম ইন্টেরিয়র ডিজাইন

Living Room হচ্ছে আপনার ফ্লাটের সেই রুম যেখানে আপনার ফরমাল অতিথি থেকে আপনার ঘরে আসা সবার পদচারণার প্রথম রুম। তাই লিভিং বা ড্রয়িং রুম ইন্টেরিয়র ডিজাইনের ক্ষেত্রে একটু সৃজনশীল আইডিয়া নিয়ে সাজানো ভাল। লিভিং রুমের ক্ষেত্রে ফ্লোর এবং দেয়ালের রং নির্বাচন করাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ, অনেক রঙের জন্য রুম দিনের বেলাও অন্ধকার লাগে তাই বাইরে থেকে আসা মানুষের কাছে যেন এমনটা মনে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

রুমকে যতটা সম্ভব হালকা ভাবে সাজালেই সুন্দর লাগে। একটা লিভিং রুমে মুলত থাকে শোফা সেট, টি-টেবিল, ল্যাম্প, ঘরে বাঁচে এমন গাছ, ইজি চেয়ার, সো পিস স্ট্যান্ড আর খুব বেশি বড় হলে রুমটিতে বুক সেলফ এবং সোকেজ রাখা যেতে পারে।

লিভিং রুমের ক্ষেত্রে রঙ নির্বাচন

Firstly রঙ নির্বাচন করাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ, অনেক রঙের জন্য রুম দিনের বেলাও অন্ধকার লাগে তাই বাইরে থেকে আসা মানুষের কাছে যেন এমনটা মনে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। লিভিংরুমের দেয়ালের কালার কিছুটা হালকা হলে ভালো হয়,যেমন হালকা ধূসর, সাদা, খয়েরি ইত্যাদি। লিভিং রুমের কার্পেটের এর ক্ষেত্রে নির্বাচন করা উচিত গাঢ রঙ, সেই ক্ষেত্রে আপনি আপনার পছন্দের খাতায় লিখে নিতে পারেন গাঢ় সবুজ, কালো, খয়েরি এসব রঙ।

ভারী পর্দা ছোট ঘরের জন্য একদম ভালো না, এতে রুমটি আরো ছোট দেখায়, তাই ছোট রুমের ক্ষেত্রে হালকা পর্দা নির্বাচন করা উত্তম।

বড় রুমের ক্ষেত্রে আপনি অনায়াসে ভারী পর্দা ব্যবহার করতে পারেন।পর্দার রঙ পছন্দের ক্ষেত্রে হালকা রঙ নির্বাচন করাই ভালো,আর অবশ্যই দেয়ালের সঙ্গে মিলিয়ে পর্দার রঙ নির্বাচন করা উচিত, এতে লিভিং রুমটি দেখতে গোছানো পরিপাটি লাগবে।

ছোট লিভিং রুমের জন্য ছোট সোফাসেট এবং বড় লিভিং রুমের জন্য আপনি বড় সোফাসেট পছন্দ করতে পারেন,সেই ক্ষেত্রে কুশনের রঙ ,দেয়াল এবং পর্দার রঙ এক রাখার চেষ্টা করুন রুমটি দেখতে সুন্দর লাগবে।  

এসব কিছুর পরেও আপনার লিভিং রুমটি প্রাণহীন,তাই রুমের কোণে পিতল বা কাসার প্ল্যান্ট হোল্ডার ব্যবহার করে ঘরে বাঁচে এমন গাছ লাগাতে পারেন। এতে আপনার লিভিং রুমটিতে সৃষ্টি হবে মনোরম এক পরিবেশ।

আলোর ক্ষেত্রে সচেতন হোন, যতটা সম্ভব প্রাকৃতিক আলো ঘরে প্রবেশ করার ব্যবস্থা রাখুন। রাতে ল্যাম্প জ্বালাতে পারেন বা ফোটফ্রেমের উপর ছোট ছোট বিভিন্ন রঙের আলোর বাল্ব লাগাতে পারেন।

একটি সাজানো গোছানো লিভিং রুম ইজি চেয়ারে আপনি আর হাতে এক কাপ চা, পড়ন্ত বিকেলে হয়তো গল্পের বই বা বন্ধুদের আড্ডা সাজানো গোছানো একটা লিভিং রুমে করে তুলতে পারে আরো আনন্দদায়ক।

তাই খুব অল্প আসবাবপত্র দিয়ে গুছিয়ে সাজিয়ে তুলুন আজই আপনার লিভিং রুমটি আপনার পছন্দের রঙের ছোয়ায়।

ইন্টেরিয়র ডিজাইন সম্পর্কে আপনার যেকোনো ধরনের পরামর্শ অথবা সহযোগিতার জন্য কল করতে পারেন আমাদের হেল্পলাইন নাম্বারে 01678568811

Share this post

Share on facebook
Share on google
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on print
Share on email

Product search